1. jashimsarkar@gmail.com : admin :
  2. mahir1309@gmail.com : star mail24 : star mail24
  3. sayeed.fx@gmail.com : sayeed : Md Sayeed
  4. newsstarmail@gmail.com : Star Mail : Star Mail
সরকারি চাকরিজীবীদের জন্য বিরাট সুখবর | Starmail24
শিরোনাম :
খুলনায় র‍্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ সাবেক চেয়ারম্যান নিহত আজ পবিত্র আরাফাত দিবস ‘লাব্বাইক আল্লাহুম্মা লাব্বাইক’ মালয়শিয়া প্রবাসী ড. ফয়জুল হকের দেশের বাড়ীতে ডাকাত দলের হামলা রায়হানকে ফেরত পাঠাবে কিনা বিষয়টি মালয়েশিয়ান আইন এবং সরকারের সিদ্ধান্ত পথশিশুদের মধ্যে ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশনের ঈদ উপহার বিতরণ করোনায় দেশে একদিনে ৫৪ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ২২৭৫ রাঙ্গাকে সরিয়ে জাতীয় পার্টির মহাসচিব হলেন জিয়াউদ্দিন বাবলু করোনাকালে গুন্ডাপান্ডার গান ‘আইসোলেশন’ আমরা ক’জন মুজিব সেনা’র নতুন কমিটি গঠন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের দৃষ্টি আকর্ষণ করে তাজউদ্দিন আহমেদের পরিবারের বিবৃতি (ভিডিও)




সরকারি চাকরিজীবীদের জন্য বিরাট সুখবর

ষ্টার মেইল রিপোর্ট :
  • প্রকাশের সময় : সোমবার, ৬ জুলাই, ২০২০

বিরাট সুখবর থাকছে আসন্ন ঈদুল আজহার আগেই সরকারি চাকরিজীবীদের জন্য । আর সেটি হল- চাঁদ দেখা সাপেক্ষে এবার ঈদুল আজহা হতে পারে আগামী ৩১ জুলাই অথবা ১ আগস্ট। যদি ১ আগস্ট ঈদ হয়, তাহলেই বেশি বোনাস পাবেন সরকারি চাকরিজীবীরা।

আর যদি ৩১ জুলাই ঈদ হয় তাহলে সরকারি চাকরিজীবীরা ঈদ বোনাস পাবেন জুন মাসের সমপরিমাণ। কিন্তু যদি ১ আগস্ট ঈদ হয় তাহলে তারা বোনাস পাবেন জুলাইয়ের মূল বেতনের সমান।

২০১৫ সালের বেতন স্কেল অনুযায়ী সরকারি চাকরিজীবীদের ১ জুলাই থেকে বার্ষিক ৫ শতাংশ ইনক্রিমেন্ট কার্যকর হয়। ১ আগস্ট ঈদ হলে বোনাস পাওয়ার ক্ষেত্রে বেশি টাকা পাবেন তারা। তবে এখন কোন তারিখ ঈদ ধরে বোনাস দেয়া হবে সেটা নির্ধারণে জটিলতায় পড়েছে হিসাব মহানিয়ন্ত্রকের কার্যালয়ও।

অর্থ মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, হিসাব মহানিয়ন্ত্রকের কার্যালয়ের মতামত হচ্ছে, ঈদুল আজহা অনুষ্ঠিত হওয়ার সম্ভাব্য তারিখ ১ আগস্ট ধরে বার্ষিক বর্ধিত বেতনসহ জুলাই মাসে গৃহীত মূল বেতন বা পেনশনের ভিত্তিতে ঈদুল আজহার উৎসবভাতা প্রদান করা হবে। ঈদুল আজহা যদি ৩১ জুলাই হয় তাহলে পরবর্তী মাসের বেতন বা পেনশন থেকে সমন্বয় করা হবে। এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্তের জন্য অর্থ মন্ত্রণালয়ে গতকাল রোববার (৫ জুলাই) চিঠি দিয়েছে হিসাব মহানিয়ন্ত্রকের কার্যালয়।

অর্থ সচিবের কাছে হিসাব মহানিয়ন্ত্রকের কার্যালয় থেকে পাঠানো চিঠিতে বলা হয়েছে, অর্থ মন্ত্রণালয়ের সর্বশেষ স্মারক অনুযায়ী, যে মাসে উৎসব অনুষ্ঠিত হবে তার পূর্ববর্তী মাসে আহরিত মূল বেতনের সমপরিমাণ অর্থ সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারী উৎসবভাতা হিসেবে পাবেন। পেনশনারদের উৎসবভাতা প্রদানের ক্ষেত্রেও পূর্ববর্তী মাসের আহরিত পেনশনের সমপরিমাণ উৎসবভাতা প্রদানের অনুরূপ নির্দেশনা রয়েছে।

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের মতামত হচ্ছে, ঈদুল আজহা অনুষ্ঠিত হওয়ার সম্ভাব্য তারিখ ১ আগস্ট ধরে বার্ষিক বর্ধিত বেতনসহ জুলাই মাসে গৃহীত মূল বেতন বা পেনশনের ভিত্তিতে ঈদুল আজহার উৎসবভাতা প্রদান করা যেতে পারে। ঈদুল আজহা ৩১ জুলাই হলে তা পরবর্তী মাসের বেতন বা পেনশন হতে সমন্বয় করা যেতে পারে।

এদিকে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের ছুটির তালিকা অনুযায়ী, আসন্ন ঈদুল আজহা অনুষ্ঠিত হওয়ার সম্ভাব্য তারিখ হচ্ছে আগামী ১ আগস্ট। যেহেতু উৎসব চাঁদ দেখার ওপর নির্ভরশীল হওয়ায় ঈদুল আজহা ৩১ জুলাইও অনুষ্ঠিত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এক্ষেত্রে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের উৎসবভাতা গত মাসের আহরিত মূল বেতন বা পেনশনের ওপর পরিশোধিত হবে নাকি জুলাই মাসের মূল বেতন বা পেনশনের ওপর ভিত্তি করে প্রদেয় হবে সে বিষয়ে জটিলতা সৃষ্টি হয়েছে।

এ বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে কিনা- জানতে চাইলে অর্থ সচিব আব্দুর রউফ তালুকদার জানান, এসব বিষয়ে আমি প্রেসের সাথে কথা বলি না। তবে সিদ্ধান্ত হলে আপনারা জানতে পারবেন।




এই বিভাগের আরো সংবাদ