23/10/2019 , ঢাকা

সম্রাটকে কারাগারে নেওয়ার সময় বিক্ষোভ, আটক ৩


প্রকাশিত: 23/10/2019 20:04:17| আপডেট:

স্টার মেইল, ঢাকা: র‍্যাবের অভিযান শেষে নিজ রাজনৈতিক কার্যালয় থেকে ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাটকে কারাগারে নিয়ে যাওয়ার সময় মুক্তির দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করেছেন তার নেতাকর্মীরা। এ ঘটনায় তিনজনকে আটক করা হয়েছে। রোববার সন্ধ্যা ৭টার দিকে রাজধানী কাকরাইলের ভূঁইয়া ম্যানশনে সম্রাটের ব্যক্তিগত কার্যালয়ের সামনে এই ঘটনা ঘটে।

ঘটনাস্থলে থেকে দেখা যায়, অভিযান শেষে কার্যালয়ে ক্যাঙ্গারুর চামড়া পাওয়ায় সম্রাটকে ছয় মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ডাদেশ দেন র‍্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত। কার্যালয় থেকে তাকে বের করে নিয়ে যাওয়ার সময় অন্তত ৩০০ নেতাকর্মী কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ মিছিল শুরু করে। তারা ‘সম্রাট ভাই ভয় নাই, রাজপথ ছাড়ি নাই’, ‘সম্রাট ভাইয়ের মুক্তি চাই’- এরকম বিভিন্ন স্লোগান দেয়। সে সময় পুলিশের সঙ্গে নেতাকর্মীদের ধাক্কাধাক্কিও হয়।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে নেতাকর্মীদের ওপর চড়া হয় র‍্যাব-পুলিশ। সে সময় ধাক্কাধাক্কির ঘটনাও ঘটে। পরে এই ঘটনায় তিনজনকে আটক করে রমনা থানা পুলিশ।

এই বিষয়ে জানতে চাইলে রমনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী মাঈনুল ইসলাম বলেন, ‘সম্রাটের কার্যালয় থেকে তিনজনকে আটক করে আমরা থানায় নিয়ে এসেছি। তবে তাদের নাম-ঠিকানা এখনো জানা যায়নি। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।’

গত ২৪ সেপ্টেম্বর সরকার সম্রাটের বিদেশ ভ্রমণের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে। সরকারের চলমান অভিযান শুরু হওয়ার পর থেকে টেন্ডারবাজি, চাঁদাবাজিসহ নানা অভিযোগের কারণে সম্রাটের নাম আলোচনায় আসে। আজ রোববার ভোরে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার আলকারা ইউনিয়নের কুঞ্জশ্রীপুর গ্রামে পরিবহন ব্যবসায়ী মুনির চৌধুরীর বাড়ি থেকে সম্রাট ও তার সহযোগী ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সহসভাপতি এনামুল হক আরমানকে আটক করার কথা জানায় র‍্যাব।

এরপর রোববার দুপুর ১টা ৪০ মিনিটে র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলমের নেতৃত্বে র‌্যাবের একটি দল কাকরাইলে ভূঁইয়া ম্যানশনে তালা ভেঙে সম্রাটের কার্যালয়ে ঢুকে অভিযান শুরু করে। সন্ধ্যা সোয়া ৬টা পর্যন্ত অভিযান চলে।

কার্যালয়ে ঢুকে দেখা যায়, সম্রাটের কার্যালয়ের বেড রুমের তোষকের নিচে ছয়টি গুলিসহ একটি আগ্নেয়াস্ত্র পড়ে আছে। কার্যালয় থেকে এক হাজার ১৬০ পিস ইয়াবা জব্দ করেছে র‍্যাব। এ ছাড়া র‍্যাবের অভিযানে দুটি ইলেকট্রনিক শক দেওয়ার যন্ত্র, ১৬ বোতল মদ, পাঁচ বান্ডেল তাস ও পাঁচটি কার্তুজ পাওয়া গেছে। এ ছাড়া সেখানে দুটি ক্যাঙ্গারুর চামড়াও পাওয়া গেছে। এই চামড়া অবৈধভাবে অস্ট্রেলিয়া থেকে আনা হয়েছে বলে জানিয়েছে র‍্যাব।

ক্যাঙ্গারুর চামড়া রাখার দায়ে বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ আইনে সম্রাটকে ছয় মাসের কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। সন্ধ্যায় র‍্যাব সদর দপ্তরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম এই আদেশ দেন।

অভিযান শেষে সারওয়ার আলম বলেছেন, সম্রাটের কার্যালয়ে দুটি ক্যাঙ্গারুর চামড়া পাওয়া গেছে। তাই বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ আইনে তাঁকে ছয় মাসের কারাদণ্ডাদেশ দেওয়া হয়েছে। তাঁকে কারাগারে পাঠানো হবে।

পরে সম্রাটকে কড়া র‍্যাব পাহাড়ায় কেরানীগঞ্জে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়।

এসব ব্যাপারে জানতে চাইলে র‍্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের সহকারী পরিচালক মিজানুর রহমান ভূঁইয়া বলেন, ‘তার (সম্রাট) কার্যালয়ে বিপুল মদ ও গুলিসহ একটি পিস্তল পাওয়া গেছে। এ ছাড়া ক্যাঙ্গারুর চামড়া পাওয়া গেছে দুটি। এসব অবৈধ জিনিসপত্রের বিষয়ে তাঁর নামে ভিন্ন ভিন্ন মামলা দায়ের করা হবে। মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে র‍্যাব।’


  
এ সম্পর্কিত আরও খবর...

কীভাবে ভিআইপি লাউঞ্জ ব্যবহার করতেন সম্রাট?

তিনি কোনো ভিআইপি বা গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি ছিলেন না। কিন্তু হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ব্যবহার করতেন গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের সুযোগ সুবিধা।

৫৫ বছরের বেশি হলে যুবলীগে নয়

যুবলীগের নতুন কমিটি গঠনে বয়সসীমা ৫৫ বছর নির্ধারণ করা হয়েছে। আজ রোববার গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে বৈঠকের পর এ কথা জানান যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক হারুনুর রশীদ।

যুবলীগের কাউন্সিলের আহ্বায়ক চয়ন সদস্য সচিব হারুন

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠন যুবলীগের সপ্তম কংগ্রেসের প্রস্তুতি কমিটিতে যুবলীগ প্রেসিডিয়াম সদস্য চয়ন ইসলামকে আহ্বায়ক

মন্তব্য লিখুন...

Top