13/11/2019 , ঢাকা

শৈলকুপা থানার ওসির প্রত্যাহার দাবিতে সাংবাদিকদের বিক্ষোভ মানববন্ধন


প্রকাশিত: 13/11/2019 06:25:38| আপডেট:

স্টার মেইল, ঝিনাইদহ: সাংবাদিকসহ বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষের বিরুদ্ধে একের পর এক মিথ্যা মামলা দায়েরের ঘটনায় ঝিনাইদহের শৈলকুপায় পুলিশের বিরুদ্ধে মানুষের ক্ষোভ ক্রমেই বাড়ছে। সর্বশেষ দুই সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মিথ্যা ষড়যন্ত্রমূলক মামলা রেকর্ড করেছেন শৈলকুপা থানার ওসি বজলুর রহমান। এসবের প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার দুপুরে শৈলকুপা প্রেসক্লাবের আয়োজনে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ থেকে অবিলম্বে শৈলকুপা প্রেসক্লাবের উপদেষ্টা ডিবিসি নিউজের জেলা প্রতিনিধি আব্দুর রহমান মিল্টন ও প্রেসক্লাবের সদস্য রামিম হাসানের নামে রেকর্ডকৃত মিথ্যা নারী নির্যাতন মামলা প্রত্যাহার দাবি করা হয়েছে। গত বছরের ১৫ ডিসেম্বর সাংবাদিক মিল্টনের উপর হামলার ঘটনায় দুর্বৃত্তদের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মামলা থেকে রক্ষা পেতে হামলাকারী দুর্বৃত্তরা শৈলকুপা থানার ওসির যোগসাজসে এমন মিথ্যা মামলা সাজানো হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন সাংবাদিকরা।

এছাড়া শৈলকুপা থানার বিতর্কিত ওসির প্রত্যাহারে ৭ দিনের আন্দোলন কর্মসূচির ঘোষণা দেয়া হয়। মানববন্ধন বিক্ষোভ ছাড়াও প্রেসক্লাবের সংবাদকর্মীরা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাইফুল ইসলামের নিকট স্মারকলিপি পেশ করেন।

মানববন্ধন ও বিক্ষোভে শৈলকুপা প্রেসক্লাব সভাপতি এম হাসান মুসা, সাধারণ সম্পাদক শাহীন আক্তার পলাশ, প্রথম আলোর নিজস্ব প্রতিবেদক আজাদ রহমানসহ জেলার সংবাদকর্মীরা বক্তব্য রাখেন।

প্রেসক্লাবের সাংবাদিকদের ৭ দিনের ঘোষিত কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে বিক্ষোভ মিছিল-সমাবেশ, মানববন্ধন, স্মারকলিপি পেশ, কলম বিরতি, অনশন, মুখে কালো কাপড় প্রদর্শন, থানার ইতিবাচক সংবাদ বর্জন।

ভিডিও…


  
এ সম্পর্কিত আরও খবর...

ঝিনাইদহ শহরে এমপির পিএসসহ দুই জনকে কুপিয়ে জখম

এদিকে খবর পেয়ে জেলা পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা হাসপাতালে আহতদের দেখতে যান।

ঝিনাইদহে সড়কে ঝরলো দুই প্রাণ

স্থানীয় লোকজন আহতদের উদ্ধার করে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। নিহত ও আহতদের বাড়ি

ঝিনাইদহে নৌকায় ভোট চেয়ে বিএনপি নেতা হলেন মিরু খাঁ!

এমন বিতর্কিতদের কমিটিতে স্থান দেয়ায় বিএনপি নেতাকর্মীদের মাঝে তীব্র সমালোচনা দেখা গেছে। এ ছাড়াও অভিযোগ উঠেছে সদ্য ঘোষিত পৌর বিএনপির যুগ্ম-আহ্বায়ক মিজানুর রহমান লান্টুও গত নির্বাচনে নৌকার পক্ষে কাজ করেছেন।

মন্তব্য লিখুন...

Top