1. jashimsarkar@gmail.com : admin :
  2. mahir1309@gmail.com : star mail24 : star mail24
  3. sayeed.fx@gmail.com : sayeed : Md Sayeed
  4. newsstarmail@gmail.com : Star Mail : Star Mail
প্রাথমিক শিক্ষকদের বেতন বাড়ছে | Starmail24
শিরোনাম :
হাসপাতালে করোনায় যমুনা গ্রুপের চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম বাবুলের ইন্তেকাল আওয়ামী লীগ দলের ভিতরে বর্ণচোরা, লোভী-ষড়যন্ত্রকারীদের সুযোগ নেই: কাদের করোনাকালে অনলাইন মিটিংয়ে খরচ ৫৭ লাখ, রিপোর্ট চাইলেন মন্ত্রী সকল প্রচেষ্ঠা ব্যর্থ করে অবশেষে না ফেরার দেশে চলে গেলেন মালয়েশিয়া প্রবাসী বকুল জেকেজি হেলথকেয়ারের চেয়ারম্যান ডা. সাবরিনা গ্রেপ্তার মরণঘাতী করোনায় একদিনে সর্বোচ্চ ২ লাখ ২৮ হাজার হাজার ১০২ সাহেদ যত বড় ক্ষমতাবানই হোক না কেন, ছাড় দেয়ার প্রশ্নই আসে না: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মালয়েশিয়ার মানবসম্পদ মন্ত্রীর সাথে রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাত, খুলতে পারে প্রবাসীদের ভাগ্য করোনায় আক্রান্ত নারী চিকিৎসকের আক্ষেপ ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মাঈনুদ্দিন হাসান করোনায় আক্রান্ত




প্রাথমিক শিক্ষকদের বেতন বাড়ছে

ষ্টার মেইল রিপোর্ট :
  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ১৩ নভেম্বর, ২০১৯

স্টার মেইল, ঢাকা: সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও সহকারী শিক্ষকদের বেতন বাড়াতে সম্মতি দিয়েছে অর্থ বিভাগ । এতে প্রশিক্ষণপাপ্ত ও প্রশিক্ষণবিহীন প্রধান শিক্ষক এবং সহকারী শিক্ষকদের বেতন বৈষম্য আর থাকলো না। সহকারী শিক্ষকদের বেতন গ্রেডও এক ধাপ (১৩ তম গ্রেড) উন্নীত হলো। প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. আকরাম-আল-হোসেন এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

বেতন বাড়ানোর বিষয়ে সম্মতি জানিয়ে অর্থ বিভাগ প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ে যে চিঠি পাঠিয়েছে তাতে বলা হয়েছে, এখন থেকে সব প্রধান শিক্ষক জাতীয় বেতন স্কেল, ২০১৫ -এর ১১তম গ্রেডে (১২৫০০-৩০২৩০ টাকা) এবং সব সহকারী শিক্ষক ১৩তম গ্রেডে (১১০০০-২৬৫৯০ টাকা) বেতন পাবেন। অর্থ বিভাগের সম্মতিতে সহকারী শিক্ষকরা বেতন গ্রেডেও একধাপ এগিয়ে গেলেন। আর প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত ও প্রশিক্ষণবিহীন প্রধান শিক্ষক ও সহকারী শিক্ষকদের মধ্যে বেতন বৈষম্য দূর হলো।

বিদ্যমান কাঠামোতে প্রশিক্ষণ পাওয়া প্রধান শিক্ষকরা ১১তম গ্রেডে এবং প্রশিক্ষণবিহীন প্রধান শিক্ষকেরা ১২তম গ্রেডে বেতন পান। আর প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত সহকারী শিক্ষকরা ১৪তম গ্রেডে ১০২০০-২৪৬৮০ টাকা এবং প্রশিক্ষণবিহীন সহকারী শিক্ষকরা ১৫তম গ্রেডে ৯৭০০-২৩৪৯০ টাকা বেতন পান।

প্রসঙ্গত, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকদের বেতন ১০ম গ্রেডে এবং সহকারী শিক্ষকদের বেতন ১১তম গ্রেডে উন্নীত করার দাবিতে শিক্ষকরা দীর্ঘদিন ধরে আন্দোলন করে আসছেন। এই দাবিতে আসন্ন প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষাও বয়কটের হুমকি দিয়েছিলেন তারা।

বেতন বৈষম্য নিরসনে গত ২৮ অক্টোবর অর্থ মন্ত্রণালয়ে চিঠি পাঠায় প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। অর্থ বিভাগ গত ৭ নভেম্বর সহকারী শিক্ষককের একটি গ্রেডে উন্নীত করে সম্মতিপত্র পাঠায়।




এই বিভাগের আরো সংবাদ