1. jashimsarkar@gmail.com : admin :
  2. mahir1309@gmail.com : star mail24 : star mail24
  3. sayeed.fx@gmail.com : sayeed : Md Sayeed
  4. newsstarmail@gmail.com : Star Mail : Star Mail
শিরোনাম :
মালয়েশিয়ায় ৪০ হাজার করোনায় আক্রান্তের সম্ভবনা “বিদেশি শ্রমিক যদি মালয়েশিয়ায় করোনায় আক্রান্ত হয়, তাকে বিনামূল্যে চিকিৎসা দেয়া হবে” মাস্কের চেয়ে হিজাব বেশি প্রতিরক্ষামূলক ব্যবস্থা: ট্রাম্প চলমান অঘোষিত লক ডাউনের মাঝেই পথে পথে ‘ভয়ঙ্কর’ চিত্র করোনা ভাইরাসে চীনে প্রায় অর্ধলক্ষ মানুষ মারা গেছে বলে দাবি মার্কিন গণমাধ্যমের অসহায় মানুষের পাশে কাউন্সিলর হামিদা নারী কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে ব্রিটিশ নাগরিকের ফ্লাটের বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্নের অভিযোগ মালয়েশিয়ায় খাদ্য সংকটে থাকা বাংলাদেশীদের জরুরী চাহিদা ফর্ম পূরণ করতে দূতাবাসের আহ্ববান করোনা সঙ্কটে অসহায় দরিদ্র মানুষের পাশে ছাত্রলীগ নেতা আরিফ আলোকিত বাংলাদেশ ছাপাও বন্ধ




ধর্ষণ ও নারী কেলেঙ্কারির অভিযোগে দুই আইনজীবী বরখাস্ত

স্টার মেইল,হবিগঞ্জ
  • প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী, ২০২০

ধর্ষণ ও নারী কেলেঙ্কারির অভিযোগে হবিগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির দুই সদস্যকে দুই বছরের জন্য বরখাস্ত করা হয়েছে। মঙ্গলবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় হবিগঞ্জ জেলা অ্যাডভোকেট সমিতির বিশেষ জরুরি সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। বরখাস্তের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন হবিগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট রুহুল হাসান শরীফ।

বরখাস্তকৃত দুই আইনজীবী হলো, হবিগঞ্জ চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের সহকারী পাবলিক প্রসিকিউটর (এপিপি) অ্যাডভোকেট আবুল কালাম ও অ্যাডভোকেট আবুল খায়ের আজাদ।

অ্যাডভোকেট রুহুল হাসান শরীফ বলেন, ‘নারী সংক্রান্ত কেলেঙ্কারির অভিযোগে দুই আইনজীবীর বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। তাদের এই অনৈতিক কর্মকাণ্ডের কারণে হবিগঞ্জ জেলা অ্যাডভোকেট সমিতির ভাবমূর্তি নষ্ট হয়েছে। এ কারণে সংগঠনের নিয়ম অনুযায়ী কার্যনির্বাহী কমিটির বিশেষ জরুরি সভায় তাদেরকে শোকজ করা হয়। শোকজের সন্তোষজনক কোনও জবাব দিতে না পারায় তাদেরকে সমিতি থেকে দুই বছরের জন্য বরখাস্ত করা হয়েছে।’

প্রসঙ্গত, গত শুক্রবার (১৭ জানুয়ারি) দুপুরে চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের তৃতীয় তলায় সরকার কর্তৃক বরাদ্দ এপিপির কক্ষে দরজা বন্ধ করা অবস্থায় এক নারীর সঙ্গে আপত্তিকর অবস্থায় পাওয়া যায় অ্যাডভোকেট আবুল কালামকে। বিষয়টি জানাজানি হলে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. নুরুল হুদা চৌধুরী ঘটনাস্থলে গিয়ে আবুল কালামকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে তিনি তার সঙ্গেও অশোভন আচরণ করেন। পরে শুক্রবার রাত ১০টার দিকে ওসি (অপারেশন) দোস মোহাম্মদ শহরের মোহনপুরের বাসা থেকে তাকে আটক করে। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে শনিবার সন্ধ্যায় উপ-পরিদর্শক (এসআই) খুরশেদ আলী বাদী হয়ে তার বিরুদ্ধে সদর থানায় মামলা দায়ের করেন। পরে আদালতের মাধ্যমে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়।

অপরদিকে গত ৭ জানুয়ারি অ্যাডভোকেট আবুল খায়ের আজাদের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ এনে মামলা দায়ের করেন এক ছাত্রী। মামলার অভিযোগে বলা হয়, দীর্ঘদিন বিয়ের আশ্বাস দিয়েও বিয়ে না করায় বাধ্য হয়ে ধর্ষণ মামলা করেন ওই নারী।




এই বিভাগের আরো সংবাদ