1. jashimsarkar@gmail.com : admin :
  2. mahir1309@gmail.com : star mail24 : star mail24
  3. sayeed.fx@gmail.com : sayeed : Md Sayeed
  4. newsstarmail@gmail.com : Star Mail : Star Mail
শিরোনাম :
‘এটাতো চিন্তাও করা যায় না মুজিববর্ষে ভারতের প্রতিনিধিত্বকে আমরা বাদ দেবো’ কারাবন্দি খালেদা জিয়ার এবারও জামিন হলো না রিমান্ডে মন্ত্রী,এমপি ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কর্মকর্তাদের নাম পাপিয়ার মুখে যশোরে ছাত্রবাসে মিললো বিপুল পরিমাণ অস্ত্র-গুলি-বোমা দিল্লিতে সংঘর্ষের মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৩৪ প্রয়োজনে মুসলমানদের জন্য জীবন দিবো, মাথা নোয়াব না: মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মালয়েশিয়ান সিভিল সার্ভেন্টদের রাজনীতি থেকে দূরে থাকার নির্দেশ অন্তর্বর্তীকালীন সরকারের যুব মহিলালীগের নাজমা অপুকে বিরক্ত প্রধানমন্ত্রীর প্রশ্ন কেনো এসেছো? ব্যাংক বন্ধ হয়ে গেলে এক লাখ টাকা নয়, পুরো টাকাই ফেরত পাবেন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সব শিক্ষককে শাস্তিমূলক বদলি




ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় ‘প্রথম সময়’ সম্পাদক গ্রেফতার

ষ্টার মেইল রিপোর্ট :
  • প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ২৩ আগস্ট, ২০১৯

স্টার মেইল, খুলনা: ফেসবুকে কুৎসা রটানোর অভিযোগে খুলনায় দায়ের করা মামলায় অনলাইন পোর্টাল প্রথম সময়ের সম্পাদক ও প্রকাশক শাহীন রহমানকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। শুক্রবার সকালে ঢাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ২৯ ও ৩১ ধারায় ওই মামলা দায়ের করা হয়েছিল। শুক্রবার বিকাল পৌনে ৫টায় তাকে খুলনা সদর থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশের সদর জোনের সহকারী কমিশনার মো. কামরুজ্জামান এসব তথ্য জানান।

কামরুজ্জামান জানান, শুক্রবার সকাল ৯টার দিকে শাহীন রহমানকে ঢাকার নাখালপাড়া থেকে খুলনা থানার একটি টিম গ্রেফতার করে। বিকাল পৌনে ৫টার দিকে তাকে খুলনা সদর থানায় আনা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে গত ৯ আগস্ট খুলনা প্রেস ক্লাবের সভাপতি এসএম হাবিব বাদী হয়ে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে একটি মামলা করেছিলেন। এছাড়া শাহীন রহমানের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে খুলনার আদালতে আরও একটি মামলা রয়েছে। শাহীন খুলনা থানার বাগমারা মেইন রোড এলাকার ২ নম্বর রোডের ৯৫ নম্বর বাড়ির আব্দুর রহমান চৌধুরীর ছেলে।

এসএস হাবিবের দায়ের করা মামলার বিবরণ থেকে জানা গেছে, গত ৯ আগস্ট সকালে এসএম হাবিব’র ছবিসহ তাকে নিয়ে শাহীন রহমান নিজ ফেসবুক পেজে জায়গা-জমি সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে আপত্তিকর একটি পোস্ট দেন। তার ফেসবুকের ওই পোস্ট দেখে অনেকে নানা ধরনের মন্তব্য করেন। অন্য সাংবাদিকদের মুখে এসএম হাবিব ওই পোস্টের বিষয়ে জানতে পারেন। পরে তিনি খুলনা প্রেস ক্লাবে এসে পোস্টটি মোবাইল ফোনে দেখতে পান। এরপর এ ঘটনায় তিনি নিজেই বাদী হয়ে খুলনা থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ২৯ ও ৩১ ধারায় মামলা দায়ের করেন।

মামলায় আরও বলা হয়, শাহীন রহমান তার ফেসবুক প্রোফাইলে খুলনার বিভিন্ন জনপ্রতিনিধি, ব্যবসায়ী ও সম্মানীয় ব্যক্তিদের নিয়ে নানা ধরনের আপত্তিকর পোস্ট দিয়ে থাকেন। এসব বিষয়ে নিয়েও প্রমাণাদি পুলিশের কাছে জমা দেওয়া হয়।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা খুলনা সদর থানার এসআই সাইদুল জানান, মামলা দায়েরের পর থেকে শাহীন রহমানকে গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত ছিল। তার লোকেশন চিহ্নিত করে গ্রেফতারের জন্য ঢাকায় টিম পাঠিয়ে সফলতা পাওয়া যায়।




এই বিভাগের আরো সংবাদ