16/11/2019 , ঢাকা

ছেলের খেলা দেখতে ইংল্যান্ডে সাকিবের মা-বাবা


প্রকাশিত: 16/11/2019 00:38:37| আপডেট:

চলমান বিশ্বকাপে ফর্মের তুঙ্গে সাকিব আল হাসান। নিজের ব্যাটিং ছন্দে গোটা ক্রিকেট দুনিয়াকে মুগ্ধ করে চলেছেন তিনি। গত ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সেঞ্চুরি করে তো সেই মাত্রা আরো বাড়িয়ে দিয়েছেন। বিশ্বের বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম সাকিব-বন্দনায় মুখর। মুগ্ধ ক্রিকেটবোদ্ধারাও।

গোটা ক্রিকেটপাড়া যখন সাকিবে মেতেছে তখন মাঠে বসে ছেলেকে উৎসাহ দিতে পাশে ছিলেন না বাবা খন্দকার মসরুর রেজা এবং মা শিরিন আক্তার। তবে আর মিস নয়। মাঠে বসে ছেলের সাফল্য দেখতে এবার বিশ্বকাপের দেশে রওনা হয়েছেন সাকিবের মা-বাবা।

বিসিবির কর্মকর্তা ওয়াসিম খান জানালেন, বুধবার বাংলাদেশ সময় সকাল ৯টায় বাংলাদেশ বিমানের একটি ফ্লাইটে ইংল্যান্ডের উদ্দেশে রওনা হন সাকিবের তারা।

বিশ্বমঞ্চে প্রথমবারের মতো টাইগারদের উইন্ডিজ-বধের রেশ এখনো কাটিয়ে ওঠেনি ক্রিকেটবিশ্ব। সাবেক কিংবা বর্তমান, দেশের কিংবা বিদেশের, ক্রিকেটার কিংবা ক্রিকেটের সঙ্গে জড়িত বাদ যাননি কেউই।

বিশেষ করে জয়ের নায়ক সাকিবকে নিয়েই মেতেছে ক্রিকেটপাড়া। চলতি আসরে এখন পর্যন্ত সেরাদের কাতারে সবার শীর্ষে সাকিব আল হাসানের নাম।

চার ম্যাচের চার ইনিংসেই হেসেছে তার ব্যাট। দুই সেঞ্চুরি এবং দুই হাফ-সেঞ্চুরিতে ৩৮৪ রান নিয়ে এখনো সর্বোচ্চ রানের তালিকায় তিনি। বল হাতেও পিছিয়ে নেই সাকিব। চার ম্যাচে ৩৮ ওভার বল করে নিজের ঝুলিতে নিয়েছেন পাঁচটি উইকেট। যেখানে তার ইকোনমি মাত্র ৫.৮৪। ছেলের এই ছন্দশীল পারফর্ম নিজের চোখে দেখতেই এবার ইংল্যান্ড পাড়ি দিচ্ছেন বাবা মসরুর রেজা এবং মা শিরিন আক্তার।

উল্লেখ্য, উইন্ডিজদের বিপক্ষে জয়ের মাধ্যমে শেষ চারের খেলা জমিয়ে দিয়েছে বাংলাদেশ। নিজেদের ষষ্ঠ ম্যাচে আগামীকাল শক্তিশালী অস্ট্রেলিয়াকে মোকাবিলা করবেন মাশরাফিরা। নটিংহামে ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় বিকেল সাড়ে ৩টায়।


  
এ সম্পর্কিত আরও খবর...

ঝিনাইদহে ১১০ বছরের বৃদ্ধার ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

এলাকাবাসী বলছেন, ছবিরন নেছার ৭ ছেলে মেয়ে। মৃত্যুর আগের দিনেও তিনি স্বাভাবিকভাবে পারিবারিক কাজকর্ম ও ঘুরে ফিরে বেড়িয়েছেন।

ঝিনাইদহে মন্দিরে চুরি

চোরে না শোনে ধর্মের কাহিনী। এমনই এক ঘটনা ঘটেছে ঝিনাইদহে।

৭শ টাকায় খাসির মাংস খেতে পারেন ২৭০ টাকায় পেঁয়াজ খেতে কষ্ট কিসের!

ঝিনাইদহের বাজারে প্রতি কেজি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ২৭০ টাকা দরে।

মন্তব্য লিখুন...

Top