1. jashimsarkar@gmail.com : admin :
  2. mahir1309@gmail.com : star mail24 : star mail24
  3. sayeed.fx@gmail.com : sayeed : Md Sayeed
  4. newsstarmail@gmail.com : Star Mail : Star Mail
শিরোনাম :
‘এটাতো চিন্তাও করা যায় না মুজিববর্ষে ভারতের প্রতিনিধিত্বকে আমরা বাদ দেবো’ কারাবন্দি খালেদা জিয়ার এবারও জামিন হলো না রিমান্ডে মন্ত্রী,এমপি ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কর্মকর্তাদের নাম পাপিয়ার মুখে যশোরে ছাত্রবাসে মিললো বিপুল পরিমাণ অস্ত্র-গুলি-বোমা দিল্লিতে সংঘর্ষের মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৩৪ প্রয়োজনে মুসলমানদের জন্য জীবন দিবো, মাথা নোয়াব না: মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মালয়েশিয়ান সিভিল সার্ভেন্টদের রাজনীতি থেকে দূরে থাকার নির্দেশ অন্তর্বর্তীকালীন সরকারের যুব মহিলালীগের নাজমা অপুকে বিরক্ত প্রধানমন্ত্রীর প্রশ্ন কেনো এসেছো? ব্যাংক বন্ধ হয়ে গেলে এক লাখ টাকা নয়, পুরো টাকাই ফেরত পাবেন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সব শিক্ষককে শাস্তিমূলক বদলি




কুর্মিটোলা থেকে কুড়িল পর্যন্ত ৭৬টি অস্থায়ী ঘর উচ্ছেদ করেছে র‍্যাব

ষ্টার মেইল রিপোর্ট :
  • প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ৯ জানুয়ারী, ২০২০

এবার সেই রাজধানীর কুর্মিটোলা থেকে কুড়িল পর্যন্ত রেললাইনের আশপাশের এলাকা থেকে ৭৬টি অস্থায়ী ঘর উচ্ছেদ করেছে র‍্যাব। শেওড়ায় বান্ধবীর বাসায় যাওয়ার পথে কুর্মিটোলা বাসস্ট্যান্ডের কাছে ধর্ষণের শিকার হন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রী।এ ধর্ষণের ঘটনায় উত্তাল হয়ে উঠে ঢাবি ক্যাম্পাসসহ সারা দেশ।

বুধবার (৮ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় অভিযান চালিয়ে এসব ঘর উচ্ছেদ করা হয়। র‍্যাব সূত্র জানায়, সন্ধ্যার কিছু আগে অভিযান শুরু হয়। পথচারীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে এই অভিযান চালিয়েছেন র‍্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত। তবে দখলদার কাউকে আটক করা যায়নি, এর আগেই পালিয়ে যান তারা।

সূত্র আরো জানায়, যারা দীর্ঘদিন ধরে অপরাধের এমন ক্ষেত্র তৈরি করেছেন তদন্ত করে তাদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এ ছাড়া রেললাইনে পড়ে থাকা পরিত্যক্ত বগিগুলো সরিয়ে নিতে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষকে জানাবে র‍্যাব।

গত রোববার সন্ধ্যা ৭টার দিকে কুর্মিটোলায় ধর্ষণের শিকার হন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রী। ধর্ষণের ঘটনায় মজনুকে নামের এক ব্যক্তিকে বুধবার ভোরে শেওড়া রেলক্রসিং এলাকা থেকে আটক করে র‍্যাব।কুর্মিটোলায় ব্যস্ত সড়কের পাশে ঝোপে তাঁকে ধর্ষণ করেন মজনু। দীর্ঘ তিন ঘণ্টা আটকে রাখেন মেয়েটিকে।

র‍্যাব জানায়, ঘটনার পর মজনু ঘটনাস্থল থেকে চলে যান রাস্তার ওপারে শেওড়ার রেলস্টেশন এলাকায়। সেখানে অরুণা নামের এক নারীর কাছে মজনু কেড়ে নেওয়া মোবাইল ফোন সেটটি ৪০০ টাকায় বিক্রি করেন। এরপর মজনু ওই রাতে পাড়ি দেন নরসিংদী জেলায়। নরসিংদী রেলস্টেশন এলাকায় ঘটনার পরদিন সোমবার পুরো দিন কাটিয়ে দেন তিনি। সেখান থেকে মঙ্গলবার সকালে আবার চলে আসেন শেওড়া রেলক্রসিং এলাকায়। এরপরই ধরা পড়েন মজনু।




এই বিভাগের আরো সংবাদ