1. jashimsarkar@gmail.com : admin :
  2. mahir1309@gmail.com : star mail24 : star mail24
  3. sayeed.fx@gmail.com : sayeed : Md Sayeed
  4. newsstarmail@gmail.com : Star Mail : Star Mail
করোনার অভিশাপে বাড়িওয়ালারা দোহাই মানবিক হন | Starmail24
শিরোনাম :
সাহেদ যত বড় ক্ষমতাবানই হোক না কেন, ছাড় দেয়ার প্রশ্নই আসে না: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মালয়েশিয়ার মানবসম্পদ মন্ত্রীর সাথে রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাত, খুলতে পারে প্রবাসীদের ভাগ্য করোনায় আক্রান্ত নারী চিকিৎসকের আক্ষেপ ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মাঈনুদ্দিন হাসান করোনায় আক্রান্ত প্রাথমিক ও গণশিক্ষাসহ পাঁচ মন্ত্রণালয়ে নতুন সচিব সরকারি চাকরিজীবীদের জন্য বিরাট সুখবর আতাইকুলায় সাবেক ছাত্রলীগ নেতার ১৩লাখ টাকা ছিনতাই মামলা উদোর পিন্ডি বুদোর ঘাড়ে শিল্পী জুলি শারমিলীর জন্মদিন আজ দুদফায় প্লাজমা থেরাপি দিয়েও বাঁচানো গেল না শিক্ষক নয়নকে করোনায় প্রাথমিকের ৮ শিক্ষক-কর্মকর্তার মৃত্যু




করোনার অভিশাপে বাড়িওয়ালারা দোহাই মানবিক হন

খুজিস্তা নূর-ই–নাহারিন (মুন্নি)
  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ২২ এপ্রিল, ২০২০
খুজিস্তা নূর-ই–নাহারিন (মুন্নি)

পৃথিবীজুড়ে মানবজাতির জীবনে নেমে আসা করোনার অভিশাপে জীবন ও সম্পদ আজ লন্ডভন্ড। গোটা মানবজাতি আজ লড়ছে করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে। বেঁচে থাকার কি করুণ আকুতির মধ্যে আজ লাশের মিছিলে মর্মান্তিকভাবে প্রিয়জনের স্নেহ সান্নিধ্য ছাড়াই চলে গেছেন পৌনে দুলাখ মানুষ। ২৫ লাখের বেশি মানুষ আজ আক্রান্ত। প্রিয়জন পাশে নেই। একা নিঃসঙ্গ। কোটি কোটি মানুষ এখন কোয়ারেন্টিনে। লকডাউনের পৃথিবীজুড়ে এক বিভীষিকাময় পরিস্থিতি। করোনার ভ্যাকসিন এখনো আবিষ্কার হয়নি, এখনো মিলেনি ওষুধ। তামাম দুনিয়ার শক্তিধর রাষ্ট্রনায়ক থেকে বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থা, গবেষক বিজ্ঞানী লড়ছেন। এমন বিরল ভয়ঙ্কর ভাইরাস কখনো আসেনি পৃথিবীতে।

এমন ভয়ঙ্কর ধ্বংসলীলার সামনে কখনো পৃথিবীর মানবজাতি একযোগে অসহায় হয়নি। পশ্চিমা উন্নত ধনাঢ্য রাষ্ট্রগুলোও তছনছ হয়ে গেছে। লাশ আর লাশ, আক্রান্ত আর আক্রান্ত। বাতাস আজ বেদনায় ভারি। বুকভরে শ্বাস নেয়না মানুষ। জীবনযাত্রা সবার উল্টে গেছে। নিস্তব্ধ নিথর পৃথিবী বিষাদময়। যুক্তরাষ্ট্রের মতোন শক্তিশালী রাষ্ট্র আজ পরাস্ত। চিকিৎসক নার্স স্বাস্থ্যকর্মীরা আজ লড়তে লড়তে ক্লান্ত। কতজন যে জীবন দিয়েছেন দেশে দেশে। তবু লড়াই চলছে। বাঁচার লড়াই, মানুষ বাঁচানোর লড়াই। বিশ্বের দেশে দেশে বিত্তবান মানবিক মানুষরাও এগিয়ে এসেছেন। যদিও ব্যবসা-বাণিজ্য বন্ধ। মুখ থুবড়ে পড়ছে অর্থনীতি। দেশে দেশে রক্ষায় তাই প্রণোদনা। মানুষকে খাবার, অর্থ দিচ্ছে ধর্ণাঢ্য দেশ।

প্রিয় বাংলাদেশ এখন করোনায় আক্রান্ত। আক্রান্তের সংখ্যা নিয়ত বাড়ছে। পরীক্ষা বাড়লে হিসেবও বাড়বে। সারাদেশে ছড়িয়েছে। মৃত্যুর হিসেবও বাড়ছে। মানবিক বিপর্যয়ের এ পৃথিবীতে ভয়ঙ্কর ছোঁয়াচে রোগে পিতা মারা গেছে, মা আক্রান্ত আইসোলেশনে, শিশু মাকেও কাছে পায় না। আত্মীয়-স্বজনকেও নয়। কি ট্র্যাজিক তার পরিলতি। যুক্তরাজ্য বৃহষ্পতিবার ভ্যাকসিন প্রয়োগ করবে আক্রান্তের শরীরে। কার্যকর হলে সুসংবাদ। কবে যে করোনার ধ্বংসের তান্ডব থামবে, কবে যে লকডাউন উঠে কাজে ফিরবে মানুষ— এ নিয়ে চরম অনিশ্চয়তায় বাংলাদেশেও। এর মধ্যেও জমিন পাকা ধানে ভরে গেছে। কাটার লোক মিলছে না। ছাত্রলীগ নেমেছে ধান কাটতে। মানুষ নেমেছে কৃষকের পাশে। পুলিশ, সেনাবাহিনী, প্রশাসন জীবনের ঝুঁকিতে কাজ করছেন। চিকিৎসক মারা গেছেন। ডাক্তার নার্স অনেকে আক্রান্ত। তবু চিকিৎসক দল লড়ছেন।

স্বাস্থ্য বিভাগের দায়িত্বশীলদের ব্যর্থতা অদক্ষতা আর নাই বললাম। কঠিন সংকটে দেশ। এখন বিতর্ক নয়, ঐক্যের লড়াই। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সাহসের সাথে দক্ষতার সাথে নেতৃত্ব দিচ্ছেন। প্রণোদনা দিয়েছেন সকল খাতে। বীরযোদ্ধাদের জন্যও এগিয়ে এসেছেন। এমন সময়ে মানবতার লড়াইয়ে যারা মাকে জঙ্গলে ফেলে গেছে তারা অমানুষ। মানবিক মানুষই হাসপাতালে নিয়ে গেছে। মনুষ্যত্ব মরেনি। ৫ কোটি মানুষকে প্রধানমন্ত্রী খাবার দিচ্ছেন। কত মানুষ কত কষ্টে।

এর মধ্যে অনেক বাড়িওয়ালা একমাসের ভাড়া মওকুফ করেছেন। কত মানুষ খাবার নিয়ে মানুষের দুয়ারে যাচ্ছে। এই মানবিক বাংলাদেশই আমাদের পরিচয়। অনেকে ডাক্তারদের বাড়ি ছাড়তে বলেছিলেন নির্দয়ের মতোন, কারণ তারা চিকিৎসা দেন করোনাক্রান্ত হতে পারেন এ ভয়ে। পুলিশ রুখেছে। ঢাকার কাঁঠালবাগানে একটি পরিবারকে বাড়িওয়ালা ভাড়া না দেয়ায় বের করে দিলে র‌্যাব ও পুলিশ ব্যবস্থা নিয়েছে।

বাড়িওয়ালাদের কাছে অনুরোধ এক মাসের ভাড়া মওকুফ করতে না পারেন, অর্ধেক করেন, তা করতে না পারেন পরিশোধের সময় দিন। দুঃসময় থাকবে না। অমানবিকতার বেদনা যন্ত্রণা কলঙ্কের ইতিহাস হয়ে থাকবে। যারা ভাড়া দেন সেই বাড়িওয়ালার থাকার জায়গা আছে, অন্য আয়ও আছে অনেকের। কিন্তু ভাড়াটের হয়তো ছোট ব্যবসা থাকলেও বন্ধ। চাকরি বাকরি করে থাকলে বেতন হয়নি। তাই এই সময়ে অমানবিক নয়, মানবিক হন। যার যে ভূমিকায় মানুষের পাশে দুর্দিনে দাঁড়াবার সামর্থ তা নিয়েই পাশে দাঁড়ান। বাড়িওয়ালারা মানবিক হন। কঠিন অমানবিক দুঃসময়ের মুখে আজ মানব জাতি, ভুলবেন না। সবাইকে এক হয়েই জিততে হবে, বাঁচতে হবে।

লেখক: সম্পাদক, পূর্বপশ্চিম




এই বিভাগের আরো সংবাদ