1. jashimsarkar@gmail.com : admin :
  2. mahir1309@gmail.com : star mail24 : star mail24
  3. sayeed.fx@gmail.com : sayeed : Md Sayeed
  4. newsstarmail@gmail.com : Star Mail : Star Mail
অনেকেই ইমরান খানকে ড্রাগ সেবন করতে দেখেছে : সরফরাজ | Starmail24
শিরোনাম :
এমএলএম কোম্পানির সংবাদ প্রকাশ করায় সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে মামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন ঝিনাইদহে গাঁজার গাছসহ ছাত্রলীগ নেতা আটক মালয়েশিয়ায় প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনার চাচী ও সাবেক ডেপুটি স্পিকার স্মরণে দোয়া মাহফিল বিশ্বসেরা গবেষকের তালিকায় বাংলাদেশি সাঈদুর রৌমারীতে নিজস্ব অর্থায়নে ২০০ হাত লম্বা বাঁশের সাঁকো মেরামত ফ্রান্সের বিরুদ্ধে অর্থনৈতিক অবরোধ আরোপের দাবি ঝিনাইদহের ভাষা সৈনিক জাহিদ হোসেন মুসা আর নেই মালয়েশিয়া আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতির মায়ের মৃত্যুতে দোয়া মাহফিল ভার্চুয়াল মিট-আপে মালয়েশিয়ায় ৬টি কোম্পানির উদ্বোধন মালয়েশিয়ায় শুরু হচ্ছে বৈধকরণ প্রক্রিয়া, পাসপোর্ট দ্রুত পেতে বাংলাদেশ সরকারের হস্তক্ষেপ কামনা




অনেকেই ইমরান খানকে ড্রাগ সেবন করতে দেখেছে : সরফরাজ

ষ্টার মেইল রিপোর্ট :
  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ৪ নভেম্বর, ২০২০

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান সম্পর্কে বিস্ফোরক অভিযোগ করলেন তার একদা সঙ্গী ক্রিকেটার সরফরাজ নওয়াজ। তার দাবি, তিনি ইমরানকে ড্রাগ নিতে দেখেছেন। সম্প্রতি ভাইরাল হওয়া এক ভিডিওতে এমনই কথা বলতে শোনা গেছে প্রাক্তন পাক পেসারকে।

সাতের দশক থেকে আটের দশকের মাঝামাঝি সময়ে পাকিস্তানের অন্যতম সেরা দুই বোলার ছিলেন ইমরান ও সরফরাজ। তাদের জুটি ছিল অত্যন্ত জনপ্রিয়। নিজের একসময়ের সতীর্থের বিরুদ্ধেই এবার অভিযোগ জানালেন প্রাক্তন পেসার। তার দাবি, কেবল তিনিই নন, অনেকেই ইমরানকে ড্রাগ সেবন করতে দেখেছেন। অভিযোগ মিথ্যা হলে ইমরান তাকে আদালতে টেনে নিয়ে যেতে পারেন বলেও চ্যালেঞ্জ সরফরাজের।

অভিযোগ, ১৯৮৭ সালে পাকিস্তান বনাম ইংল্যান্ডের এক টেস্ট ম্যাচ চলাকালীন ইমরান ইসলামাবাদে সরফরাজের বাড়িতে আসেন। সেখানেই পাক তারকাকে ড্রাগ নিতে দেখেন তার সঙ্গী পেসার। সেসময় ইমরান ভাল খেলতে পারছিলেন না বলেও জানিয়েছেন‌ সরফরাজ। সেদিন ইমরানের সঙ্গে ছিলেন মহসিন খান, আবদুল কাদির, সেলিম মালিকও। সেই সময় তারা সকলে মিলে চরস খেয়েছিলেন বলে দাবি করেছেন প্রবীণ পেসার। পাশাপাশি জানিয়েছেন, তিনি লন্ড‌নেও কাগজে পাকিয়ে কোকেন সেবন করতে দেখেছেন ইমরানকে।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীও এই অভিযোগ অস্বীকার করতে পারবেন না বলে দাবি সরফরাজের। তিনি বলছেন, ‘আপনারা ওকে আমার সামনে নিয়ে আসুন। দেখি, ও কীভাবে অস্বীকার করে। আমি তো একা সাক্ষী ছিলাম না। লন্ডনে অনেকেই ওকে এটা করতে দেখেছে।’

১৯৬৯ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হয়েছিল সরফরাজের। ক্রিকেট ইতিহাসে তিনি পরিচিত রিভার্স সুইংয়ের আবিষ্কর্তা হিসেবে। ক্রিকেট ছাড়ার পরে ইমরান খানের মতো তিনিও রাজনীতিতে যোগ দিয়েছিলেন। ১৯৮৫ সালে তিনি পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশের সাংসদ হিসেবে নির্বাচিত হন।




এই বিভাগের আরো সংবাদ