15/10/2019 , ঢাকা

স্বামী দীর্ঘদিন প্রবাসে, স্ত্রী অন্তঃসত্ত্বা


প্রকাশিত: 15/10/2019 03:13:36| আপডেট:

মাদারীপুর প্রতিনিধি: স্বামী দীর্ঘদিন রয়েছেন প্রবাসে অথচ স্ত্রী অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েছেন। মাদারীপুরের কালকিনি এলাকায় এমন চাঞ্চল্যকর এক ঘটনা ঘটেছে । এ ঘটনায় সোমবার কালকিনি থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন ভুক্তভোগীর বাবা।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানান, মাদারীপুরের কালকিনিতে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে প্রবাসীর স্ত্রীর সাথে শারিরীক সম্পর্ক করে মুন্না আকন (২১) নামে এক যুবক। এতে করে ওই নারী দেড় মাসের অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে। পরে প্রবাসীর স্ত্রীর পরিবার সোমবার থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। ঘটনার পর থেকে ওই যুবক পলাতক রয়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, কালকিনি উপজেলার আলীনগর এলাকার রাজাচর গ্রামের এক সৌদি আরব প্রবাসীর স্ত্রীকে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে হোগলপাতিয়া গ্রামের শামীম আকনের ছেলে মুন্না আকন (২১) বিভিন্ন সময় একাধিকবার শারিরীক সম্পর্ক করে। কিছুদিন আগে প্রবাসীর স্ত্রী হঠাৎ করে অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে এক চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যায় তার পরিবার। চিকিৎসক জানায় ওই নারী অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েছেন। ঘটনার পর এলাকায় ব্যপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়।

ধর্ষণের অভিযোগ এনে ভুক্তভোগীর বাবা বাদী হয়ে কালকিনি থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। প্রবাসীর স্ত্রীর বাবা বলেন, আমার মেয়ের স্বামী রয়েছে বিদেশে। এ সুযোগে আমার মেয়েকে ধর্ষণ করেছে লম্পট মুন্না। তাই আমার মেয়ে অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েছে। আমরা মুন্নার বিচার চাই।

তবে অভিযুক্ত মুন্নার সাথে যোগযোগের চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি। তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোনও বন্ধ।

এ ব্যাপারে কালকিনি থানার ওসি মো. মোফাজ্জেল হোসেন বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। এ বিষয় তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।


  
এ সম্পর্কিত আরও খবর...

পূর্বাশা পরিবহনের বাসের ধাক্কায় নিহত ২

ঢাকাগামী পূর্বাশা পরিবহনের একটি বাসের ধাক্কায় এক নারীসহ একই পরিবারের দু’জন নিহত হয়েছেন। শুক্রবার দুপুরে এই ঘটনা ঘটে।

যশোরে ব্যাগে টান ছিনতাইকারীর, শিশুসহ রাস্তায় ছিটকে পড়লেন মা

মোটরসাইকেল চালিয়ে আসা ছিনতাইকারী রিকশা আরোহী নারীর ব্যাগ ধরে টান দিলে ওই নারী ও তার কোলে থাকা শিশু সন্তান রাস্তার ওপর ছিটকে

শ্বশুরবাড়িতে স্ত্রীকে হত্যার পর ঝিনাইদহের যুবকের আত্মহত্যা

চলতি বছরের ২৭ জুন তাদের বিয়ে হয়। পূজা উপলক্ষ্যে অষ্টমীর দিনে দিপুল তার স্ত্রীকে নিয়ে শৈলকুপা থেকে শ্বশুর বাড়িতে এসেছিলেন। সেখানেই এ ঘটনা ঘটে।

মন্তব্য লিখুন...

Top