15/10/2019 , ঢাকা

বিয়ে হয় না তাই খাচ্ছেন মোবাইলের ব্যাটারি


প্রকাশিত: 15/10/2019 03:14:53| আপডেট:

এমন কখনো শোনা গেছে বিয়ে হয় না বলে কেউ মোবাইলের ব্যাটারি পর্যন্ত খেয়ে ফেলতে পারেন? অদ্ভুত হলেও এটাই সত্যি। বিয়ে হচ্ছে না বলে কেউ কেউ এতটা মরিয়া হয়ে উঠতে পারেন! বয়স বেড়ে যাচ্ছে অথচ এখনও চার হাত এক হলো না কোনো মেয়ের সঙ্গে। এই সমস্যার সমাধান করতেই হবে ভেবে তিনি আশ্রয় নেন এক তান্ত্রিকের।

সেই তান্ত্রিকের চক্করে পড়ে তিনি এমন অনেক কিছু খান যা একজন সাধারণ মানুষ খেতে পারেন না। সম্প্রতি এমন ঘটনা প্রকাশ হয়েছে। ভারতের উত্তর প্রদেশের হরদোই জেলায় এ ঘটনা ঘটেছে।

কলকাতা২৪ এর খবরে বলা হয়েছে, বিয়ের জন্য শরীরে এনার্জি বাড়াতে তান্ত্রিকের কথামতোই মোবাইলের ব্যাটারি, চাবি, ধারাল তার এমনকি কাচ পর্যন্ত খেয়ে ফেলেছেন তিনি।

হরদোই জেলার বিলগ্রামের বাসিন্দা অজয় দ্বিবেদীর বয়স বেড়ে ৪০ বছর। কিন্তু এখনো তার বিয়ে হয়নি। এই সমস্যার সমাধান করতে তিনি এক তান্ত্রিকের কাছে যান। তান্ত্রিক তাকে উপায় বাতলে দেন। জীবনের প্রতি নিরাশ হয়ে পড়া ওই ব্যক্তি তান্ত্রিকের দেয়া সমাধানই মেনে নেন।

তান্ত্রিক বলেন, শরীরের অবস্থা ভালো না হওয়ার কারণেই তার বিয়ে হচ্ছে না। তার ওপর কেউ তুকতাক করেছে। এজন্য তার শরীর ভালো থাকে না ও বিয়ে হচ্ছে না। এই কথা শুনে ও লোকজনের বাতলে দেয়া উপায়েই অজয় তান্ত্রিকের কাছে পৌঁছান। তান্ত্রিক বলে তাকে মোবাইলের ব্যাটারি খাওয়ার পরামর্শ দেন।

তান্ত্রিক বলেন “তোমার কাছে মোবাইল, ঘড়ি বা যা যা জিনিস রয়েছে তা চিবিয়ে খেয়ে ফেল।” এরপরেই অজয় তার মোবাইল, ঘড়ি, মোবাইলের ব্যাটারি, ক্যামেরার লেন্স আর গাড়ির চাবিসহ বেশকিছু জিনিস খেয়ে ফেলেন। কিন্তু ওই অবিবাহিত পুরুষের পেটে যখন যন্ত্রণা শুরু হয় তখন তা সহ্য করতে না পেরে তিনি চিকিৎসকের কাছে যান।


  
এ সম্পর্কিত আরও খবর...

ভোটে বাজিমাৎ নায়িকা নুসরাতের

রাজনীতিতে নেমেই টলিউড অভিনেত্রী নুসরাত জাহানের জয়জয়কার। লোকসভা নির্বাচনে বসিরহাট থেকে তিনি প্রায় তিন লাখ ভোট বেশি পেয়ে বিজয় অর্জন করেছেন। লোকসভা নির্বাচনে

দাঁড়িয়ে থাকা মানুষদের পিষে দিলো চলন্ত ট্রেন, নিহত ৫০

প্রত্যক্ষদর্শীদের ভাষ্য, রেললাইনের পাশে দাঁড়িয়ে রাবণ বধ দেখছিলেন প্রায় এক হাজার মানুষ। এর মধ্যে নারী এবং শিশুরাও ছিলেন। এমন সময়

বিয়ে ছাড়াই যেভাবে সন্তান জন্ম দিলেন নারী চিকিৎসক!

ভারতের পশ্চিমবঙ্গে বিয়ে না করেই এক পুত্র সন্তানের জন্ম দিয়েছেন এক নারী চিকিৎসক। ওই চিকিৎসকের নাম শিউলি মুখোপাধ্যায়। দীর্ঘদিন ধরে তিনি

মন্তব্য লিখুন...

Top